শিরোনাম
জুমার মিম্বার থেকে বাবুনগরী : আল্লাহ ফেরআউনকেও সুযোগ দিয়েছেন, তবে ছেড়ে দেননি আফগানিস্তান থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহার নিয়ে ভারতের উদ্বেগ মসজিদ-মাদ্রাসা উন্মুক্ত রাখার আহ্বান জানিয়ে মুফতি আজম আবদুচ্ছালাম চাটগামীর খোলা চিঠি রমজানে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে রাখতে হেফাজত আমীর আল্লামা বাবুনগরীর আহ্বান গ্রেফতার আতঙ্কে ঘর ছাড়া হাজারো আলেম, দুর্ভোগে পরিবার মসজিদ লক করার ইখতিয়ার কারো নেই : মুফতি সাখাওয়াত চিকিৎসা বিজ্ঞান মতে রোজার অতুলনীয় উপকার, বিবিসির প্রতিবেদন পবিত্র রমজান মাসের চাঁদ দেখা গিয়েছে, কাল রোজা ইসলামাবাদীসহ গ্রেফতারকৃত হেফাজত নেতাকর্মীদের মুক্তি দিতে হবে : আমীরে হেফাজত  আল্লামা শফীর ইনতিকাল স্বাভাবিক, পিবিআইয়ের রিপোর্ট উদ্দেশ্যপ্রণোদিত মিথ্যাচার : হেফাজত আমির
শুক্রবার, ১৬ এপ্রিল ২০২১, ০৭:০৭ অপরাহ্ন
add

আল্লামা আহমদ শফী ছিলেন শতাব্দীর মহাজাগরণের প্রতীক : স্মরণ সভায় আল্লামা জুনাইদ বাবুনগরী

কওমি ভিশন ডেস্ক
প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ২ অক্টোবর, ২০২০
add

হাটহাজারী ওলামা পরিষদের উদ্যোগে শায়খুল ইসলাম আল্লামা শাহ্ আহমদ শফি রহ. -এর জীবন, কর্ম ও অবদান শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে হেফাজতের সিনিয়র নায়েবে আমীর আল্লামা শাহ্ মুহিব্বুল্লাহ বাবুনগরী বলেন,

ইলমে হাদীস ও মাদরাসা শিক্ষার প্রচার-প্রসারে ব্রত থাকার পাশাপাশি ইসলাহী বয়ান, তাসাওফ এবং সুলুকের লাইনেও আল্লামা শাহ্ আহমদ শফি বহু খেদমত করে গেছেন। তাঁর বর্ণাঢ্য কর্মজীবন এদেশের আলেম সমাজ ও তৌহিদী জনতার জন্য এক অনুকরণীয় আদর্শ হয়ে থাকবে। আল্লাহ তা’আলা হযরতের ত্রুটি-বিচ্যুতিগুলো ক্ষমা করুন, আখিরাতের দারজাত বুলন্দ করে দিন এবং জান্নাতুল ফিরদাউসে উচ্চ মাকাম নসিব করুন। আমিন।

Image may contain: 4 people, crowd and outdoor, text that says '.urgG - তালুকদার টেইলাস ল'

স্মরণসভায় উপস্থিত জনতার একাংশ

প্রধান আলোচকের বক্তব্যে হেফাজত মহাসচিব, হাটহাজারী মাদরাসার শিক্ষা পরিচালক ও শায়খুল হাদীস আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী বলেন,

মহান আল্লাহ যুগে যুগে তাঁর প্রিয় বান্দাদের মাধ্যমে ইসলাম ও মুসলমানদের ব্যাপক খেদমত আঞ্জাম দিয়ে থাকেন। আল্লামা শাহ্ আহমদ শফি বাংলাদেশে ভ্রান্ত মতবাদ ও অনৈসলামিক কার্যকলাপের বিরুদ্ধে বলিষ্ঠ ভূমিকা রেখে গেছেন। ২০১৩ সালে ইসলামবিদ্বেষী নাস্তিক্যবাদের আগ্রাসী আস্ফালনের বিরুদ্ধে এদেশের আলেমসমাজ ও তাওহিদী জনতাকে নিয়ে ইতিহাসের নজিরবিহীন গণআন্দোলনের ডাক দিয়েছিলেন। যা ছিলো এক মহাজাগরণ। আমার শায়খ ও সবার মুরুব্বী আল্লামা শাহ্ আহমদ শফীর ইন্তেকালে জাতির অপূরণীয় ক্ষতি হয়েছে। তবে অচিরেই হুজুরের রেখে যাওয়া কর্মসূচীকে সামনে রেখে হেফাজত ও কওমী মাদরাসা সমূহকে আমরা সকলে এগিয়ে নিয়ে যাব ইনশাআল্লাহ। এজন্য আপনাদের সকলকে ত্যাগের মানসিকতা নিয়ে সহযোগিতার হাত প্রসারিত করতে হবে।

Image may contain: 15 people, crowd and outdoor

স্মরণসভায় উপস্থিত জনতার একাংশ

উক্ত আলোচনা সভায়  বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন মাওলানা মামুনুল হক। তিনি আল্লামা শাহ্ আহমদ শফিকে বিশ্বনেতা সম্বোধন করে বলেন,

ইসলাম প্রচার-প্রসারে তাঁর অবদানের কথা আগামী কয়েক শতাব্দি মানুষ মনে রাখবে। হাদীসের মসনদ থেকে ময়দানে নেমে শিরক, বিদআত ও নাস্তিক-মুরতাদসহ সকল অপশক্তি বিরোধী আন্দোলনে নেতৃত্ব দিয়ে তিনি বিশ্বনেতায় পরিণত হয়েছেন। তাঁর ইন্তেকালে আমরা একজন আদর্শ সেনাপতিকে হারালাম।

ওলামা পরিষদের সহসভাপতি মাওলানা মোহাম্মদ শফির সভাপতিত্বে ও হাটহাজারী উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান, ওলামা পরিষদের সিনিয়র সহ-সাধারণ সম্পাদক মাওলানা নাছির উদ্দীন মুনীর, যুগ্ম সম্পাদক মাওলানা মীর ইদরীস, যুগ্ম সম্পাদক মাও. মোঃ জাহাঙ্গীর আলম মেহেদীর যৌথ সঞ্চালনায় এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন হাটহাজারী মাদরাসার সিনিয়র মুহাদ্দিস আল্লামা শেখ আহমদ, সিনিয়র মুহাদ্দিস আল্লামা মোঃ ইয়াহইয়া, পটিয়া মাদরাসার সিনিয়র মুহাদ্দিস আল্লামা আবু তাহের নদভী, নাজিরহাট বড় মাদরাসার ভারপ্রাপ্ত পরিচালক মুফতী হাবিবুর রহমান কাসেমী, চারিয়া মাদরাসার পরিচালক মাওলানা আব্দুল্লাহ হারুন, মেখল মাদরাসার সিনিয়র শিক্ষক মুফতি মুহাম্মাদ আলী কাসেমী, বাথুয়া মাদরাসার মুহাদ্দিস মাওলানা জাফর আহমদ।

বিশেষ আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রফেসর ড. আ.ফ.ম. খালিদ হোসাইন, জামিয়তুল উলুম লালখান বাজার মাদ্রাসার সিনিয়র মুহাদ্দিস ও সহকারী পরিচালক মুফতি হারুন ইজহার, মাওলানা খোবাইব পরিচালক জিরি মাদরাসা, মাওলানা আবু তৈয়ব আব্দুল্লাহপুরী পরিচালক জামিয়া উম্মুল ক্বোরা মহিলা ক্যাম্পাস, মাওলানা হাবিবুল্লাহ আজাদী পরিচালক আজাদী বাজার মাদরাসা, মাওলানা জাহেদুল্লাহ পরিচালক ইছাপুর মাদরাসা, মুফতী সিরাজুল্লাহ পরিচালক দারুচ্ছুফ্ফা মাদরাসা, মাওলানা ফরিদ দারুল মাআরিফ, হাফেজ তৈয়ব পরিচালক সেগুনবাগান মাদরাসা, মাওলানা ইব্রাহীম পরিচালক মাদার্শা মাদরাসা, মাওলানা নছিম গড়দুয়ারা মাদরাসা, মাওলানা মুস্তফা খন্দকিয়া মাদরাসা, মাওলানা শিহাব উদ্দীন পরিচালক ইউনুছিয়া মাদরাসা, মাওলানা মাহমুদ শাহ্ বাবুনগর মাদরাসা, মুফতী হোসাইন দলইনগর মাদরাসা, মাওলানা ক্বারী ফজলুল করিম সেগুনবাগান মাদরাসা, মাওলানা জামাল উদ্দীন খন্দকিয়া মাদরাসা।

এতে আরও উপস্থিত ছিলেন, মাওলানা জাকারিয়া নোমান ফয়জী, মাওলানা মাহমুদুল হোসাইন, মাওলানা আনোয়ার শাহ্ আযহারী, মাওলানা মোঃ শফিউল আলম, মাওলানা নজরুল ইসলাম চাঁদগাজী, মাওলানা কামরুল ইসলাম, মাওলানা রিজওয়ান আরমান, মাওলানা নিজাম সাইয়্যিদ, হাফেজ মাওলানা ওবাইদুল্লাহ ওবাইদ (সম্পাদক কওমি ভিশন), মাওলানা মোঃ আসাদ উল্লাহ আসাদ , হাফেজ আব্দুল মাবুদ, মোঃ আতিকুর রহমান, মাওলানা হাবিবুর রহমান হাবীব, মাওলানা হাফেজ জামশেদুল ইসলাম, মাওলানা ইকবাল গড়দুয়ারী, মাওঃ হাফেজ সালাউদ্দীন, মোহাম্মদ আমিনুল ইসলাম প্রমুখ।

অতিথিদের আলোচনার পর আল্লামা মুহিব্বুল্লাহ বাবুনগরীর বিশেষ মুনাজাতের মাধ্যমে আলোচনা সভা সমাপ্ত ঘোষণা করা হয়। মুনাজাতে আল্লামা আহমদ শফীর মাগফিরাত এবং দেশ ও জাতির কল্যাণ কামনা করা হয়।


বার্তা প্রেরক,
মাওলানা জাকারিয়া নোমান ফয়জী
সাংগঠনিক সম্পাদক : হাটহাজারী ওলামা পরিষদ।

Leave a comment

add

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
%d bloggers like this:
%d bloggers like this: