শিরোনাম
আরব-ইসরাইল সম্পর্কের প্রতিবাদে বাহরাইনে বিক্ষোভ চলছেই হাটহাজারীর ছাত্র বিক্ষোভের সমর্থনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সমাবেশের ডাক দিলেন ভিপি নুর হাটহাজারিতে আবারো বিক্ষোভে ছাত্ররা, সব দাবী আদায় না হওয়া পর্যন্ত মাঠ না ছাড়ার সিদ্ধান্ত দাবি আদায়ের লক্ষ্যে হাটহাজারী মাদ্রাসার মাঠে শান্তিপূর্ণ অবস্থান বিক্ষোভকারীদের আনাস মাদানির বহিষ্কারসহ ৫ দফা দাবিতে উত্তাল হাটহাজারী মাদ্রাসা ইহুদিবাদী ইসরাইলের সাথে আরব দেশের সম্পর্ক ফিলিস্তিনি জনগণ মেনে নেবে না সরকারি চাকরিপ্রার্থীদের বয়সে ৫ মাস ছাড় মুসলিম নির্যাতনের অভিযোগে চীন থেকে পণ্য আমদানি বন্ধ করলো যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশের সাথে বাণিজ্য-বিনিয়োগ বৃদ্ধির অঙ্গীকার পূণর্ব্যক্ত করলো তুরস্ক সশস্ত্র লড়াইয়ের মাধ্যমেই কেবল ফিলিস্তিন মুক্ত হবে: হিজবুল্লাহ
শুক্রবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৭:৫৫ অপরাহ্ন
add

কওমি মাদরাসা খোলার অনুমতি দিয়েছে সরকার

কওমি ভিশন ডেস্ক
প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ২৫ আগস্ট, ২০২০
add

কওমি মাদরাসা খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। মঙ্গলবার বিকেলে এ সংক্রান্ত নোটিশ দিয়েছে কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগ। মোট ৬টি শর্তে কওমি মাদরাসার কিতাব বিভাগ খোলার অনুমতি দেয়া হয়েছে। এর আগে গত ২৪ আগস্ট কওমির দাওরায়ে হাদীস পরীক্ষার অনুমতি দেয় সরকার। এছাড়া গত ১২ জুলাই থেকে হিফজ বিভাগ খোলার অনুমতি দেয়া হয়।

বেশকিছুদিন ধরে কওমি মাদরাসা খুলে দেয়ার দাবি ঊঠতে থাকে। গত ১৭ আগস্ট কওমি মাদরাসা খুলে দিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে লিখিত আবেদন জানায় জাতীয় দ্বীনি মাদরাসা শিক্ষাবোর্ড। মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলামের কাছে আবেদনপত্রটি পৌঁছে দেয় বোর্ডটির কর্মকর্তারা। এছাড়া অন্যান্য আলেমরাও বক্তব্য বিবৃতির মাধ্যমে কওমি মাদরাসা খুলে দেয়ার দাবি জানান। সে প্রেক্ষিতে গত ২৪ আগস্ট মন্ত্রী পরিষদের সভা থেকে কওমির মাস্টার্স পর্যায়ের পরীক্ষা গ্রহণের অনুমতি দেয়া হয়। এর একদিন পর কওমির কিতাব বিভাগ খোলারও অনুমতি দেয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার বিকেলে শিক্ষাবোর্ডের কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগের সহকারী সচিব সৈয়দ আসগর আলী স্বাক্ষরিত এক নোটিশে জানানো হয়েছে, স্বাস্থ্যবিধি যথাযথভাবে অনুসরণ করে কওমি মাদ্রারাসার কিতাব বিভাগের শিক্ষা কার্যক্রম শুরু ও পরীক্ষা গ্রহণের অনুমতি দেয়া হল। এক্ষেত্রে প্রয়োজনে স্বাস্থ্য বিভাগ মনিটরিং করতে পারবে বলেও নোটিশে উল্লেখ করা হয়। এ সময় ৬ টি স্বাস্থবিধি মেনে চলারও নির্দেশনা দেয়া হয়। শর্তগুলো হলো: ১. প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে মাস্ক, হ্যান্ড গ্লাভস, মাথায় নিরাপত্তা টুপি পরা আবশ্যক। ২. মাদরাসায় প্রবেশের আগে গেটে স্যানিটাইজিং করতে হবে। ৩. শিক্ষার্থীরা নিজ নিজ কক্ষে অবস্থান করবে, বিক্ষিপ্তভাবে চলাফেরা করবে না। ৪. একজন শিক্ষার্থী অন্য শিক্ষার্থী থেকে কমপক্ষে ৩ ফুট দূরত্বে অবস্থান করবে। ৫. করোনার কারণে কোলাকুলি ও হাত মেলানো যাবে না। এবং ৬. শিক্ষক ও কর্মচারীরাও একইভাবে সরকারের স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে ক্লাস করাবেন। সূত্র: নয়াদিগন্ত

Leave a comment

add

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
%d bloggers like this:
%d bloggers like this: