কক্সবাজার জেলা হেফাজত সভাপতির ইন্তেকালে আল্লামা বাবুনগরীর শোক প্রকাশ

কওমি ভিশন ডেস্ক: হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ কক্সবাজার জেলার সভাপতি,দারুল উলুম হাটহাজারী মাদরাসার মজলিসে শূরার সম্মানিত সদস্য ও কক্সবাজার জোয়ারিয়ানালা এমদাদুল উলুম মাদরাসার পরিচালক মাওলানা আবুল হাসানের ইন্তেকালে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন হাটহাজারী মাদরাসার স্বনামধন্য মুহাদ্দিস ও হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের মহাসচিব শায়খুল হাদীস আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী। আজ ৫ ই জুলাই রবিবার সংবাদমাধ্যমে প্রেরিত এক শোকবার্তায় আল্লামা বাবুনগরী বলেন, মাওলানা আবুল হাসান (রহ.) কক্সবাজারের একজন শীর্ষ আলেম ছিলেন। তিনি আমার পিতা মেশকাত শরীফের বিশ্ববিখ্যাত ব্যখ্যাগ্রন্থ তানজিমুল আশতাতের রচয়িতা আল্লামা আবুল হাসান (রহ.) এর হাতেগড়া সুযোগ্য শাগরেদ ছিলেন । মাওলানা আবুল হাসান রহ. ছিলেন দারুল উলুম হাটহাজারীর কৃতি ফাযেল। আমার সাথে ছিলো তাঁর ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক।আমাকে তিনি অনেক বেশি মুহাব্বত করতেন। তাঁর সন্তানরাও আমাকে খুব বেশি সম্মান, শ্রদ্ধা ও মুহাব্বত করে। তাঁর ইন্তেকালে আমি গভীরভাবে শোকাহত। স্মৃতিচারণ করে আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী বলেন, মাওলানা আবুল হাসান রহ. এর সাথে আমার বহুবার সাক্ষাৎ হয়েছে। তিনি সদালাপী ও বিনয়ী ছিলেন।আমাকে মুহাব্বত করে গত ২৬/১১/১৯ ইং তারিখে তিনি আমার মাধ্যমে তাঁর প্রতিষ্ঠিত কক্সবাজারের ঐতিহ্যবাহী হোটেল সী-কক্সের উদ্বোধন করিয়েছেন। তিনি হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ কক্সবাজার জেলার সভাপতি ছিলেন।জীবদ্দশায় হেফাজতের জন্য তিনি যে সব কাজ করেছেন তা আমি শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করছি। আল্লাহ তায়া’লা এর উত্তম বিনিময় দান করুন। আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী মরহুমের শোক সন্তপ্ত পরিবারবর্গের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে বলেন,মহান প্রভুর দরবারে আমি দুআ করি, আল্লাহ তাআলা তাঁর সকল দ্বীনি খেদমতকে কবুল করুন, তাঁর পরিচালিত মাদরাসাকে কিয়ামত পর্যন্ত জারি রাখুন এবং ত্রুটি-বিচ্যুতি ক্ষমা করে জান্নাতের সর্বোচ্চ স্থান দান করুন,আমিন।

বিজ্ঞাপন

Leave a comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: