শিরোনাম
মিথ্যা মামলা দিয়ে একটি কুচক্রি মহল দেশে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির ষড়যন্ত্র করছে মাদরাসায় হামলাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে : আল্লামা জুনাইদ বাবুনগরী  ফটিকছড়িতে কওমি মাদ্রাসায় মাজারপন্থীদের সন্ত্রাসী হামলার নিন্দা জানিয়েছেন আল্লামা মুহিব্বুল্লাহ বাবুনগরী আল্লামা নুরুল ইসলাম জিহাদি হেফাজতের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মনোনীত পুলিশকে গুণ্ডা ও মাস্তানের ভূমিকায় দেখতে চাই না, এসপিকে বরখাস্ত করুন : ইসলামাবাদী মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে হেফাজত ও মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষের সংবাদ সম্মেলন টাইমস অব ইন্ডিয়ায় প্রকাশিত প্রতিবেদনের প্রতিবাদ জানিয়েছে হেফাজত আল্লামা শফীর মৃত্যুকে ইস্যু করে বরেণ্য আলেমদের বিরুদ্ধে মামলা: নিন্দা জানিয়ে শীর্ষ ২৮ উলামা-মাশায়েখের বিবৃতি দেশের বিশিষ্টজনদের রাষ্ট্রপতিকে চিঠি দেয়া উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বললেন ইসি শাহাদাত আল্লামা কাসেমীর মাগফিরাত কামনায় হাটহাজারীতে বিশেষ দুআ অনুষ্ঠিত 
রবিবার, ১৭ জানুয়ারী ২০২১, ০৬:৫৪ অপরাহ্ন
add

ট্রাম্পের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করল ইরান

কওমি ভিশন ডেস্ক
প্রকাশের সময় : সোমবার, ২৯ জুন, ২০২০
add

কওমি ভিশন ডেস্ক: ইরাকের বাগদাদে ড্রোন হামলায় জেনারেল কাসেম সোলাইমানি নিহতের ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পসহ  কয়েক ডজন ব্যক্তির বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছে ইরান। তাদের গ্রেপ্তারের ইন্টারপোলের সহায়তাও চাওয়া হয়েছে।

সোমবার তেহরানের প্রসিকিউটর আলী আলকাসিমিহর বলেন, ট্রাম্পসহ আরও ৩০ জনের বিরুদ্ধে ৩ জানুয়ারির হামলায় জেনারেল কাসেম সোলাইমানিকে হত্যায় জড়িত থাকা এবং সন্ত্রাসবাদের অভিযোগে এ পরোয়ানা জানি করা হয়। ইরানের আধা-সরকারি সংবাদ সংস্থা  আইএসএনএ’র বরাত দিয়ে আল জাজিরা এ তথ্য জানিয়েছে।

ট্রাম্প ব্যতীত অন্য কারো নাম উল্লেখ করেননি এই প্রসিকিউটর। তবে তিনি জোর দিয়ে বলেন, ট্রাম্পের রাষ্ট্রপতি হিসেবে ট্রাম্পের মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ার পরও ইরান তার বিরুদ্ধে মামলা চালিয়ে যাবে।

এদিকে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির বিষয়ে মন্তব্যের অনুরোধ করা হলে ফ্রান্সের লিয়নে অবস্থিত ইন্টারপোলের দপ্তর থেকে সাড়া মেলেনি।

আলকাসিমিহর আরও বলেন, ইরান ট্রাম্প ও অন্যদের গ্রেপ্তারে ইন্টারপোলকে ‘রেড নোটিশ’ দেওয়ার অনুরোধ করেছে। যাতে ইন্টারপোল কর্তৃক জারি করা সর্বোচ্চ-স্তরের এই নোটিশের মাধ্যমে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি হওয়া ব্যক্তিদের অবস্থান চিহ্নিত ও গ্রেপ্তারে পদক্ষেপ নেওয়া হয়।

গত ৩ জানুয়ারি ভোরে ইরাকের বাগদাদ বিমানবন্দরের কাছে যুক্তরাষ্ট্রের বিমান হামলায় ইরানের সেনাবাহিনী রেভল্যুশনারি গার্ডের অভিজাত বাহিনী কুদস ফোর্সের প্রধান কাসেম সোলাইমানি নিহত হন। ওই হামলায় সোলাইমানি ছাড়াও আরও কয়েকজন প্রাণ হারান।

এরপর যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা দপ্তর পেন্টাগন বলেছে, প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্দেশনা অনুযায়ী তাকে হত্যা করা হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের সিআইএ ও ইসরায়েলের মোসাদের হিটলিস্টে থাকা ‘বিশ্বের এক নম্বর জেনারেল’ সোলাইমানিকে একজন সন্ত্রাসী বিবেচনা করত ওয়াশিংটন।

বিজ্ঞাপন

Leave a comment

add

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
%d bloggers like this:
%d bloggers like this: