শিরোনাম
জুমার মিম্বার থেকে বাবুনগরী : আল্লাহ ফেরআউনকেও সুযোগ দিয়েছেন, তবে ছেড়ে দেননি আফগানিস্তান থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহার নিয়ে ভারতের উদ্বেগ মসজিদ-মাদ্রাসা উন্মুক্ত রাখার আহ্বান জানিয়ে মুফতি আজম আবদুচ্ছালাম চাটগামীর খোলা চিঠি রমজানে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে রাখতে হেফাজত আমীর আল্লামা বাবুনগরীর আহ্বান গ্রেফতার আতঙ্কে ঘর ছাড়া হাজারো আলেম, দুর্ভোগে পরিবার মসজিদ লক করার ইখতিয়ার কারো নেই : মুফতি সাখাওয়াত চিকিৎসা বিজ্ঞান মতে রোজার অতুলনীয় উপকার, বিবিসির প্রতিবেদন পবিত্র রমজান মাসের চাঁদ দেখা গিয়েছে, কাল রোজা ইসলামাবাদীসহ গ্রেফতারকৃত হেফাজত নেতাকর্মীদের মুক্তি দিতে হবে : আমীরে হেফাজত  আল্লামা শফীর ইনতিকাল স্বাভাবিক, পিবিআইয়ের রিপোর্ট উদ্দেশ্যপ্রণোদিত মিথ্যাচার : হেফাজত আমির
রবিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২১, ১২:৩০ অপরাহ্ন
add

প্রিন্সিপাল হাবিবুর রহমান (রহ.) আমাদের জন্য ছিলেন একজন আপোষহীন সাহসী রাহবার

কওমি ভিশন ডেস্ক
প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ২৫ অক্টোবর, ২০১৮
add

ওবাইদুল্লাহ ওবাইদ
প্রিন্সিপাল হাবিবুর রহমান (রহ.)। একটি নাম একটি ইতিহাস। একটি চেতনা। বাতেল সম্প্রদায়ের কাছে তিনি আতঙ্ক। তার মৃত্যুতে তাসলিমা নাসরিনের প্রকাশ্য আনন্দ প্রকাশ করাটাই বোঝা যায় তিনি বামপাড়ায় কতটা আকঙ্কের ছিলেন। পৃথিবীতে এমন বীর বার বার আগমন করে না। এ মহান ব্যক্তির ইনতিকালে আমরা গভীরভাবে শোকাহত। আমরা আত্মার মাগফিরাত এবং জান্নাতে উচ্চ মকাম কামনা করছি।
বেড়ে ওঠা জন্ম : ১৯৫৩ সালের ৮ জুলাই গোলাপগঞ্জ উপজেলার ফুলবাড়ি ইউনিয়নের হাজিপুর গ্রামে।
লেখাপড়া: কওমি মাদরাসায় পড়ালেখার পাশাপাশি দেশের প্রাচীনতম আলিয়া মাদ্রাসা গোলাপগঞ্জের ফুলবাড়ি মাদরাসায় ফাজিল পর্যন্ত পড়েন। পরে সিলেট সরকারি আলিয়া মাদরাসা থেকে কামিল পাস করেন।
কর্মজীবন: ১৯৭৪ সালের জুন মাসে দেশের শীর্ষ আলেমদের তত্ত্বাবধানে সিলেটের কাজিরবাজার এলাকায় সুরমা নদীর তীরে প্রতিষ্ঠা করেন ঐতিহ্যবাহী জামেয়া মাদানিয়া ইসলামিয়া কাজির বাজার মাদরাসা। দারুল উলুম দেওবন্দের নীতিতে পরিচালিত এই মাদরাসা শুরু থেকেই সিলেবাসে বাংলা, ইংরেজিসহ জাগতিক বিষয় যুক্ত করে নতুন ধারার সূচনা করেন। কওমি মাদরাসার প্রধানের পরিচয় মুহতামিম হলেও তিনি খ্যাতি পেয়েছিলেন প্রিন্সিপাল হিসেবে।

রাজনীতি: তাঁর রাজনীতি জমিয়ত দিয়ে শুরু খেলাফত দিয়ে শেষ। ১৯৭৭-৮১ দীর্ঘ পাঁচ বছর তিনি ছিলেন সিলেট জেলা জমিয়তের সেক্রেটারি জেনারেল। তখনকার সভাপতি ছিলেন আল্লামা চৌঘরি ও আল্লামা শফিকুল হক আকুনি (রাহ.)। ১৯৯৪ সালে দেশের নারীবাদী ধর্মবিদ্বেষী মুরতাদ লেখিকা তসলিমা নাসরিনের বিরুদ্ধে আন্দোলনের ডাক দিয়ে সারাদেশে আলোচিত হন প্রিন্সিপাল মাওলানা হাবিবুর রহমান (রহ.)। তার সংগঠন সাহাবা সৈনিক পরিষদের ব্যানারে সিলেটে অসংখ্য সভা-সমাবেশ করেন। তীব্র আন্দোলনের মুখে দেশ ছেড়ে নির্বাসনে যেতে বাধ্য হন তসলিমা নাসরিন। এছাড়াও দেশের নাস্তিক-মুরতাদবিরোধী আন্দোলনের কারণেও তিনি দেশব্যাপী পরিচিতি পান। ২০১২সালে বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের আমির শায়খুল হাদিস আল্লামা আজিজুল হক (রাহ.) মৃত্যুবরণ করলে তিনি দলের আমির নিযুক্ত হন। ২০১৮ সালের ১৯ অক্টোবর শুক্রবার রাতে আমাদেরকে রেখে তিনি রফিকে আলার ডাকে সাড়া দিয়ে চলে যান। আল্লাহপাক তাকে জান্নাতের উঁচু মাকাম দান করুন।
লেখক: সম্পাদক, কওমি ভিশন
সহকারী সম্পাদক, মাসিক আল মানাহিল

Leave a comment

add

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
%d bloggers like this:
%d bloggers like this: