শিরোনাম
গরিবদের আগে করোনার টিকা দিয়ে সরকার দেখবে মানুষ বাঁচে না মরে: রিজভী সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হলো হিজামা হেল্পলাইন কর্তৃক আয়োজিত ফায়ার কাপিং কর্মশালা মিথ্যা মামলা দিয়ে একটি কুচক্রি মহল দেশে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির ষড়যন্ত্র করছে মাদরাসায় হামলাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে : আল্লামা জুনাইদ বাবুনগরী  ফটিকছড়িতে কওমি মাদ্রাসায় মাজারপন্থীদের সন্ত্রাসী হামলার নিন্দা জানিয়েছেন আল্লামা মুহিব্বুল্লাহ বাবুনগরী আল্লামা নুরুল ইসলাম জিহাদি হেফাজতের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মনোনীত পুলিশকে গুণ্ডা ও মাস্তানের ভূমিকায় দেখতে চাই না, এসপিকে বরখাস্ত করুন : ইসলামাবাদী মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে হেফাজত ও মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষের সংবাদ সম্মেলন টাইমস অব ইন্ডিয়ায় প্রকাশিত প্রতিবেদনের প্রতিবাদ জানিয়েছে হেফাজত আল্লামা শফীর মৃত্যুকে ইস্যু করে বরেণ্য আলেমদের বিরুদ্ধে মামলা: নিন্দা জানিয়ে শীর্ষ ২৮ উলামা-মাশায়েখের বিবৃতি
বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারী ২০২১, ১২:০১ পূর্বাহ্ন
add

সৌদি সরকারের দমন নিপীড়ন : কারাগারে অন্ধ ও বধির হলেন প্রখ্যাত আলেম শেখ সালমান আল কুদার

কওমি ভিশন ডেস্ক
প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০২০
add

সৌদি আরবের খ্যাতিমান আলেম শেখ সালমান আল-কুদার ছেলে জানিয়েছেন যে, তার বাবা কারাগারে থাকা অবস্থায় প্রকৃতপক্ষে অন্ধ ও বধির হয়ে গেছে। সৌদি সরকারের পক্ষ থেকে তার ওপর প্রচণ্ড রকমের দমন-পীড়নের জন্য এই প্রখ্যাত আলেম কার্যত অচল হয়ে যেতে বসেছেন।

সৌদি আরবের বর্তমান যুবরাজ এবং কার্যত শাসক মোহাম্মদ বিন সালমান ক্ষমতাধর হয়ে ওঠার পর দেশটির গণতন্ত্রের জন্য আন্দোলনকারী, আলেম এবং বুদ্ধিজীবীদের ওপর দমনপীড়ন মারাত্মকভাবে বেড়েছে।

প্রিজনার্স অফ কন্সায়েন্স নামে সৌদি আরবের একটি মানবাধিকার সংগঠন তাদের টুইটার পেইজে আজ (বৃহস্পতিবার) বলেছে যে, কারারুদ্ধ আলেম শেখ সালমান আল-কুদা প্রায় তার শ্রবণ শক্তি হারিয়ে ফেলতে বসেছেন এবং তিনি দৃষ্টিশক্তি হারানোর কাছাকাছি। ৬৩ বছর বয়সী তার ছেলে আবদুল্লাহ আল-আওদা এসব তথ্য জানিয়েছেন।

বাবার মুক্তি নিশ্চিত করার জন্য শেখ সালমানের ছেলে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠনগুলোর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

সূত্র : পার্সটুডে

Leave a comment

add

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
%d bloggers like this:
%d bloggers like this: